ব্রণ দূর করার উপায়

by karim ahamed

ছেলে অথবা মেয়ে দের বর্তমান সময়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি সমস্যা হচ্ছে মুখে ব্রণ হওয়া। বিভিন্ন কারণে আপনার মুখের ব্রণ জনিত সমস্যা দেখা দিতে পারে। সাধারণত 16 বছরের পর থেকে মানুষের কি সমস্যা দেখা দেয়।  সমস্যার অন্তরালে অনেক কারণ থাকে। তাই এই পর্যায়ে আপনাদের সাথে মুখের ব্রণ জনিত সমস্যার কারণ এবং সমস্যা সমাধানের উপায় সম্পর্কে আলোচনা করো। 

ব্রণ হওয়ার কারণ

মুখের ব্রণের চিকিৎসা করার জন্য প্রথমেই জানতে হবে  ব্রণ হওয়ার মূল কারণ।   চিকিৎসার মাধ্যমে ভাল ফলাফল পেতে অবশ্যই কারণ  খুঁজে বের করতে হবে তাই নিচে কয়েকটি কারণ সম্পর্কে তুলে ধরা হলো।

  1.   মা-বাবা বা  পূর্বপুরুষের ব্রণ জনিত সমস্যা থাকলে বংশগত কারণে এ সমস্যা দেখা দিতে পারে। 
  2.  বয়সন্ধিকালে হরমোনজনিত কারণে ব্রণ উঠতে পারে।  সময় শরীরে এন্ড্রোজেনের মাত্রা বেড়ে যায়।  যার ফলে নাক মুখ এবং শরীরের ও জায়গায় বরণ জনিত সমস্যা দেখা দেয়। 
  3.  এলকোহল এবং মাদক সেবন সহ  ধূমপান জনিত কারণে মুখের ব্রণ হতে পারে। 
  4.  অতিরিক্ত রাত্রি জাগরন এর কারণে মানুষের মুখের ব্রণ হয়। 
  5.  মানসিক চাপ এবং দুশ্চিন্তা জনিত কারণে ব্রণ হতে পারে। 
  6.  বেশি পরিমাণ তৈলাক্ত প্রসাধনী ব্যবহারের ফলে মুখের ব্রণ দেখা দেয়। 

 মুখের ব্রণ প্রতিরোধের উপায়

 চিকিৎসাগত পদ্ধতি ব্যবহার করেও আপনি মুখের ব্রণ দূর করতে পারেন তার জন্য অবশ্যই একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন।  সাধারণত যুবক বয়সের মুখের ব্রণ দেখা দিলে বিভিন্ন ক্রিম ব্যবহার করে এটা সমাধান করা যায় তবে 30 থেকে 40 বছর বয়সী কোন মহিলা এবং পুরুষের মুখের ঘাম জনিত সমস্যা দেখা ডাক্তারের পরামর্শের প্রয়োজন হয়। 

 ব্রণ হলে খাদ্যাভাস

বিভিন্ন চিকিৎসাবিদ্যায় মতে মুখের ব্রণ জনিত সমস্যা দেখা দিলে বেশি পরিমাণ পানি জাতীয় ফল খেতে হবে।  তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু ফল হচ্ছে  তরমুজ শসা কমলা মাল্টা ইত্যাদি। 

 এছাড়া বেশি পরিমাণে সবুজ শাকসবজি এবং ভিটামিন এ জাতীয় খাবার খাওয়ার মাধ্যমে আমরা মুখের ব্রণ জনিত সমস্যা দূর করতে পারি। 

  •  ব্রণ সমস্যা দূর করার জন্য পর্যাপ্ত নিরাপদ পানি পান করতে হবে। 
  •  তৈলাক্ত ও কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনী ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে হবে। 
  •   বারবার মুখের ব্রণের ভিতরে হাতদিয়ে চিমটানো যাবে না। 
  •  সঠিক সময় পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমাতে হবে। 
  •   দিনে দুইবার ভালোভাবে মুখ পরিষ্কার করে নিবেন। 
  •   ব্যবহৃত ক্রিম ব্যবহারের পূর্বে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জেনে নিবেন।

 পরামর্শ :

 প্রাকৃতিক কিছু উপাদানে আছে যেগুলো ব্যবহারের মাধ্যমে মুখের ব্রণ দূর করা যেতে পারে। 

১.  প্রাকৃতিক উপাদান অ্যালোভেরা মুখে ব্যবহার করার মাধ্যমে অনেকেই ব্রণ জনিত সমস্যা দূর করতে পারে। 

২. মুখের ভিতর লেবুর খোসা ঘষার মাধ্যমে কিছুটা হলেও মুখের ব্রণ দূর করা যায়। 

৩.  টমেটো এবং আলু এর তৈরি ফেস মাস্ক ব্যবহার করে মুখের ব্রণ জনিত সমস্যা থেকে সমাধান হওয়া সম্ভব। 

 ৪. প্রাকৃতিক ভাবে তৈরি নারিকেল তেলের সাথে নিম পাতার ফেস মাস্ক তৈরি  করে ব্যবহার করতে পারেন । 

এছাড়া আরো কিছু কারণ আছে যেগুলো দৈনন্দিন জীবনের না মেনে চললে আমাদের মুখে ব্রণ জনিত সমস্যা দেখা দিতে পারে। 

 বয়সন্ধিকালে অতিরিক্ত মানসিক চাপের কারণে মুখের ব্রণ দেখা দিলে ডাক্তারের পরামর্শ নেবেন অথবা স্বাভাবিকভাবে সুস্থ হওয়ার চেষ্টা করবেন। 

You may also like

Leave a Comment