বর্তমানে সবথেকে লাভজনক উৎপাদনমুখী ৭টি ব্যবসার আইডিয়া

আপনারা যদি নিজের ভাগ্য এবং তার সাথে যদি দেশের উন্নয়ন সাধন করার চিন্তা করে থাকেন

তাহলে অবশ্যই আপনাদেরকে সে ক্ষেত্রে উৎপাদনমুখী ব্যবসা শুরু করতে হবে। 

 

বর্তমানে সবথেকে লাভজনক উৎপাদনমুখী ৭টি ব্যবসার আইডিয়া

প্রথমাবস্থায় আপনারাক্ষুদ্র ভাবেশুরুকরতেপারেনাতারছোটকরে  প্রথমঅবস্থায় আপনারাশুরুকরতেপারেন।কিন্তুআস্তেআস্তেআপনারাআপনাদের ব্যবসাটাকে বড়করতেপারবেনতাতেকোনসমস্যানেই। 

 

{tocify} $title={Table of Contents}

 

আজকেআমরাআমাদেরআর্টিকেলে ২০টিউৎপাদনমুখী ব্যবসার আইডিয়া সম্পর্কে আলোচনাকরবযেসেগুলোআপনারাকরতেপারবেনঅর্থাৎএরভেতরথেকেযেকোনএকটিব্যবসাআপনারাআপনাদের পছন্দমত করতেপারবেন। 

. কাগজ তৈরির ব্যবসা 

আমাদের দেশে কিন্তু অনেক আগে থেকেই কাগজের চাহিদা প্রচুর পরিমাণে রয়েছে   আশা করা যায় যে তাই ভবিষ্যতেও কাগজের চাহিদা প্রচুর পরিমাণে থাকবে এর সাইডে কমবে না বরং আস্তে আস্তে বাড়বে কাগজ তৈরি করা বা কাগজ বানানো কিন্তু অনেক লাভজনক একটি ব্যবসা  এর ভিতরে পড়ে   অফিসআদালত স্কুলকলেজ  এই সমস্ত জায়গায় কিন্তু কাগজের অনেক দরকার হয়ে থাকে এই সমস্ত জায়গায় কাগজের ব্যবহার বেশি হয়ে থাকে এটা আমরা সকলেই জানি।  

কাগজ তৈরি করা বা কাগজ বানানোর মেশিন তার সাথে কাঁচামালমিলিয়ে  আপনাদের প্রাথমিকভাবে দেখা যাবে যে দুই  হতে আড়াই লক্ষ টাকা ইনভেস্ট  করলেই এই ব্যবসা শুরু করে দিতে পারবেন। মার্কেটেসাধারণভাবে দেখা যায় যেটু, থ্রি এবংফোর  এই সমস্ত মাপের যে কাগজগুলোর রয়েছে সেই কাগজগুলোর চাহিদা সব সময় থাকে। 

এছাড়া আপনারা এই ব্যবসার সাথে সাথে খাতা বানানোর ব্যবসা শুরু করতে পারেন   আর বর্তমানে কিন্তু A4 কাগজের প্রচুর পরিমাণে চাহিদা রয়েছে আপনারা কিন্তু এই ব্যবসা করে বেশ  ভালো লাভ করতে পারবেন   অল্প টাকার ভিতরে বেশ ভালো একটা উৎপাদনমুখী ব্যবসা এটা হতে পারে আপনাদের জন্য   তাই আপনারা যদি ব্যবসা করার জন্য ইন্টারেস্ট বা আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। 

. কাগজের ব্যাগ তৈরির ব্যবসা 

আমাদের দেশে মার্কেটগুলোতে এবং শপিংমল সুপারশপগুলোতে কিন্তু কাগজের ব্যাগ এর চাহিদা প্রচুর পরিমাণে রয়েছে  আর তাছাড়া ঘর থেকে বের হলে দেখা যায় যে প্রচুর পরিমাণে কাপড়ের দোকান রয়েছে এরপরে অন্যান্যব্যবসায়ীদের  অনেক কাজের জন্য  কিন্তু  কাগজের ব্যাগ দরকার হয়ে থাকে। 

আপনি চাইলে কিন্তু বাড়িতে বসে বসে এই কাগজ উৎপাদন করার ব্যবসা শুরু করতে পারেন অর্থাৎ কাগজ তৈরি করার ব্যবসা বাড়িতে বসেই শুরু করতে পারেন  

বর্তমান সময়ে কিন্তু এখন অনেকে খবরের কাগজ তৈরি করে বেশ ভালো পরিমাণে একটা অর্থোপার্জনকরতেছে  এছাড়া আপনারা তৈরি করতে পারেন হালকা পিচ বোর্ডের বাক্স  যেগুলোতে   মিষ্টির দোকান হতে  শাড়ির দোকান ফলের দোকান এই সমস্ত জায়গা থেকে নিয়ে ব্যাপক পরিমাণে চাহিদা রয়েছে

আর এই ব্যবসা শুরু করল কিন্তু আপনারা বেশ লাভবান হতে পারবেনকাগজের ব্যাগ এর চাহিদা কিন্তু সব সময় থাকে তাই এই ব্যবসা শুরু করতে চাইলে করতে পারেন  

. শিশুদের খেলনা তৈরির ব্যবসা  

বর্তমান সময়েকিন্তুআমাদেরদেশেরবাচ্চাদের জন্যবেশিরভাগ খেয়ালনাইবিদেশথেকেঅর্থাৎবাহিরের দেশথেকেআমাদেরবাংলাদেশে আসে 

যদি আপনারা উৎপাদনমুখী ব্যবসা শুরু করতে চান তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনারা কিন্তু যে কাজটি করতে পারেন সেটি হলো আপনারা শিশুদের জন্য খেলনা উৎপাদন করার ব্যবসা শুরু করতে পারেন আর এই ব্যবসা থেকে বেশ  লাভবান  হতে পারবেন। 

আর এই ব্যবসা করে কিন্তু আপনাদের লাভ হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকবে   

আর এই ব্যবসাএর চাহিদা কোন সময় কম আবার কোন সময়ে বেশি এরকম না এই ব্যবসার চাহিদা সব সময় এক রকম থাকে তবে আপনারা যদি এই ব্যবসাটি ভালোভাবে করে শুরু করতে চান তাহলে সে ক্ষেত্রেআপনাদের কে বেশ ভালো পরিমাণে একটা  মূলধন এখানে ইনভেস্ট করতে হবে।  

. কয়েল উৎপাদন করার ব্যবসা  

বর্তমানে আমাদের সমাজে বসবাস করার জন্য সব থেকে বড় শত্রু হলো মশা   আর এই মশার কারণে কিন্তু অনেক মানুষের ডেঙ্গু রোগে আক্রান্তহচ্ছেন এবং হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, অনেক মানুষই রয়েছে যারা ডেঙ্গু আক্রান্তহয়ে মারা যাচ্ছেন এই মশার কারণে    

আর আপনারা চাইলে কিন্তু মশা মারার জন্য মশার ঔষধ বানাতে পারেন অর্থাৎ আপনারা মশার কয়েল বানাতে পারেন। মশা তাড়ানোর জন্য কিন্তু মশার কয়েল বেশ উপকারী। শীতের থেকে কিন্তু গরমের সময় দেখা যায় যে মশা তাড়ানোরজন্য মশার কয়েলের বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে  

বর্তমান সময়ে মশার কয়েল তৈরি করে এরকমের কিন্তু অনেক ধরনের প্রতিষ্ঠান মার্কেটেরয়েছে   

তবে তাতে আপনাদের চিন্তা করার কোনো কারণ নেই আপনাদের পণ্য অর্থাৎ আপনাদের প্রোডাক্ট যদি ভালো হয় তবে অবশ্যই আপনাদের প্রোডাক্টেরসুনাম বাড়বে এবং আপনাদের প্রোডাক্টঅনেক মানুষ  কিনবে এবং ব্যবহার করবে।  

আর আপনার যদি কাস্টমারদের কে ভালো প্রোডাক্ট দিতে পারেন অর্থাৎ, আপনারা যদি ভালো  মশার কয়েল দিতে পারেন তাহলে কিন্তু আপনাদের ব্যবসায় সফলতা অবশ্যই আসবে।  

আর এই ব্যবসা শুরু করার জন্য কিন্তু আপনাদের বেশি মূলধনের দরকার হবে না অল্প মূলধন দিয়ে কিন্তু আপনারা এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।  আপনারা চাইলে কোন কোম্পানির ডিলারশিপ নিতে পারেন অথবা আপনারা চাইলে নিজেই একটা কারখানা দিতে পারেন , 

আর মশার কয়েলের এর কারখানা দিতে বেশি পরিমাণে মূলধন এর দরকার হয় না অল্প  পরিমাণে মূলধন  দিয়েই  আপনারা এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন   

. আটা ময়দা তৈরি ব্যবসা 

খুবই সহজ এবং অল্প পুঁজির ব্যবসার ভিতর এই  আটাময়দা তৈরির ব্যবসা কিন্তু বেশ লাভজনক একটি ব্যবসা বলা যায়।   একটা মেশিন কিন্তু আপনারাই ব্যবসা শুরু করে দিতে পারবেন    আর এই ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনাদেরকে সেরকমভাবে বেশি মূলধনের দরকার হবে না

আটা ময়দা  বানানোর পরে সেটাকে বিভিন্ন ধরনের  সাইজের ব্যাগের  ভিতরে  ভর্তি করে  কিংবা আপনারা চাইলে  প্যাকেট করে আপনাদের এলাকাতে  মুদি দোকান গুলোতে  সাপ্লাই করতে পারেন।  আর তাছাড়াও  বড় বড় বস্তা ভর্তি করে  কিন্তু আপনারা বিভিন্ন দোকানে সাপ্লাই করতে পারবেন। 

কাঠের ফার্নিচার উৎপাদন 

বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নের ফলে কিন্তু এখন  কাঠের ফার্নিচার তৈরিতে প্রযুক্তিরদারাস্ত  হচ্ছে মানুষের বর্তমান সময়ে কিন্তু   সিএনসি রাউটার মেশিন  এর মাধ্যমে অনেক অল্প সময়ের ভিতর  নিখুঁত ডিজাইন করা  যায় এবং তার সাথে  নিখুঁত  ভাবে ফার্নিচারতৈরি  করাটা অনেক সহজ হয়ে গিয়েছে বলা যায়।    

আর এই ব্যবসাটি যদি আপনারা শুরু করতে চান তাহলে কিন্তু আপনাদের কে বেশি পরিমাণে মূলধন নিয়ে আপনাকে এই ব্যবসায় নামতে হবে।  অধিক পরিমাণে  প্রডাক্ট আপনাদেরকে উৎপাদন করার ইচ্ছা থাকতে হবে না হলে কিন্তু আপনাদের ব্যবসায়লোকসানের সম্মুখীনহতে হবে   

. কলম উৎপাদন করার ব্যবসা  

কলম হল এমন একটি প্রোডাক্টযে প্রোডাক্টটিকেসবসময় ব্যবহার করা হয়ে থাকে আর এই ব্যবসায় অল্প পুজিতে বেশ ভালো পরিমাণে লাভ করা যায়   আর এই ব্যবসার সবথেকে বড় সমস্যা হল  আমাদের দেশে অনেক বড় বড় প্রতিষ্ঠান  আছে  যে সকল প্রতিষ্ঠান  এর  কলম অনেক  ভালো মানের এবং তারা যে পরিমাণ  দামে বিক্রি  করতেছে সেই পরিমাণ  দামে   কলম  আপনাদের জন্য বিক্রি করে একটু কষ্টসাধ্যহয়ে যাবে   কারণ তারা অনেক বেশি পরিমাণে উৎপাদন করে থাকে   তাই আপনারা যদি তাদের সাথে পাল্লা দিয়ে ব্যবসা করতে চান তাহলে আপনাদের জন্য একটু কঠিন হবে   আর তার পরেও আপনারা চাইলে লোকাল মার্কেট গুলোতে  বিক্রি  করে  বেশ ভালো পরিমাণে লাভবান হতে পারবে   তথ্যসূত্র–  eibbuy 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *