প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে যা বললেন রিজভী

by karim ahamed

সরকার উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী পালটা প্রশ্ন করে বলেছেন, ‘সরকার উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র করবে কেন? মানুষ তো দম বন্ধ করা পরিবেশে বাস করছে। তারা দমে দমে আপনার পতন চায়। সমগ্র জাতি দলমত নির্বিশেষে সবাই আপনার পতন নিশ্চিত করতে ঐক্যমত। কারণ মানুষ স্বস্তিতে বেঁচে থাকার জন্য তারা আপনার পতন চায়।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় রিজভী বলেন, ‘ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের কাছে দেশের মানুষের কোনো নিরাপত্তা নেই। তাদের দ্বারা অসংখ্য নেতাকর্মী গুম খুনের শিকার হয়েছেন।’‘গুমের শিকার’ পরিবারগুলোর পাশে থেকে আরও কাজ করার জন্য যার যার অবস্থান থেকে সহায়তা প্রদানের আহ্বান জানান তিনি।

গুম হওয়া পরিবারকে অর্থ সহায়তা প্রদানের জন্য কোরিয়া বিএনপি ও যুবদলের উদ্যোগে এই অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য তারিকুল আলম তেনজিং, আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসভাপতি ওয়াহিদ বিন ইমতিয়াজ বকুল, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. জাহেদুল কবির, ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকার, ছাত্রদলের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল প্রমুখ।

রিজভী বলেন, ‘আজকে দেশে যারা বিরোধী মত পোষণ করেন তাদের পরিবারের ওপর নেমে আসবে ভয়াবহ অমানবিক ও নিষ্ঠুর নির্যাতন। গুমের পরিবারে চলছে বোবা কান্না। শুধু বিরোধী দল বা মত নয়, সামগ্রিকভাবে সবকিছু গুম করেছে সরকার।’ তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের ভোটাধিকার, মানবাধিকার, মানুষের চলাচলের অধিকার, দেশের স্বাধীনতা সবকিছুই গুম করেছে। এই সরকার ছাত্রদলের অনেক নেতাকে গুম করেছে। আমাদের ইলিয়াস আলী নিখোঁজ রয়েছেন। আর প্রধানমন্ত্রী বলেন তার কোনো দোষ নেই। আমরা শুধু প্রতিবাদ করলেই দোষ। আর তারা গুম করেও নির্দোষ।’

মীর সরফত আলী সপু বলেন, ‘এই সরকারের কাছে আবেদন-নিবেদন করে কোনো লাভ নেই। কারণ রাষ্ট্র নিজেই সন্ত্রাসীদের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। সুতরাং ছাত্রদল-যুবদলসহ সবাইকে কঠোর আন্দোলন সংগ্রামের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে।’

You may also like

Leave a Comment