অতিরিক্ত মাত্রায় লেবু চা খেলে শরীরে বাসা বাধে যেসব রোগ

বাড়তি ওজন চিন্তায় ফেলেছে? তাই দুধ-চিনি দিয়ে চায়ের পরিবর্তে লেবু চা-ই দিনের শুরুতে ভরসা? ভাবছেন এই অভ্যাসেই দ্রুত ঝরবে মেদ! অনেকেই আবার কাজের ফাঁকে চনমনে হতে একাধিক বার লেবু চায়ে চুমুক দেন। এই অভ্যাস কিন্তু মোটেই ভাল নয়। অতিরিক্ত মাত্রায় লেবু চা খেলে শরীরে একাধিক রোগ বাসা বাধে। জেনে নিন এর থেকে শরীরের ঠিক কী কী ক্ষতি হতে পারে।

> দাঁত ও হাড়ের ক্ষয়: বারে বারে লেবু চায়ে চুমুক দেন? এর ফলে কিন্তু দাঁতের এনামেল ক্ষয়ের লক্ষণ দেখা যায়। তাই দাঁতের ক্ষয় রুখতে অত্যধিক মাত্রায় লেবু চা না খাওয়াই ভাল। লেবু চা খাওয়ার পরই অবশ্যই ভাল করে কুলকুচি করে নিতে ভুলবেন না, নইলে দাঁতের বারোটা বাজতে বেশি সময় রাগবে না।

> গ্যাস্ট্রিক ও অ্যাসিডিটির সমস্যা: ঘন ঘন লেবু চা খেলে অন্ত্রের পিএইচের মাত্রায় পরিবর্তন আসে। এর থেকে অ্যাসিডিটির সমস্যা হয়। বুক জ্বালাও অনুভব করতে পারেন। এমনকী, বমিও হতে পারে। গ্যাস, পেট ব্যথা, ডায়ারিয়া এমনকী, গ্যাস্ট্রিক আলসারের সমস্যাও দেখা যায়।

> শরীরে পানির ঘাটতি হয়: শীতে ডিডাইড্রেশনের সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। লেবু চা বেশি মাত্রায় খেলে আবার তা মূত্রবর্ধক হিসেবে কাজ করে। যে কারণে শরীরে ডিহাইড্রেশনের সমস্যা আরও বেড়ে যায়।

> গর্ভপাতের ঝুঁকি বাড়ে: অন্তঃসত্ত্বা নারীদের জন্য লেবু চা একেবারেই নিরাপদ নয়। এতে ক্যাফিন থাকে। এই অতিরিক্ত মাত্রায় ক্যাফিন শরীরে গেলে গর্ভপাতের সম্ভাবনা থাকে। এ ছাড়া অ্যাসিডিটিরও সমস্যা হয়।

> অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি বাড়ে: অতিরিক্ত লেবু চা খেলে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। এতে অস্টিওপরোসিসের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই লেবু চায়ের মাত্রার উপর নিয়ন্ত্রণ রাখা ভীষণ জরুরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *